১২৭ কোটি ৮ লাখ টাকার ব্যয়ে ৪ ‘ক্রয় প্রস্তাব’ অনুমোদন

0

পত্রিকা রিপোর্ট
১২৭ কোটি ৮ লাখ ৮৮ হাজার ৯৮ টাকা ব্যয়ে ৪ ‘ক্রয় প্রস্তাব’ অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। বুধবার (১৮ নভেম্বর) অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এক ভার্চুয়াল সভায় এই অনুমোদন দেওয়া হয়। সভাশেষে অর্থমন্ত্রী ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. আবু সালেহ মোস্তফা কামাল অনুমোদিত ক্রয় প্রস্তাবগুলোর বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।
অর্থমন্ত্রী বলেন,‘আজ অর্থনৈতিক বিষয়ক কমিটির অনুমোদনের জন্য ১টি এবং সরকারি ক্রয় সংক্রান্ত মন্ত্রিমসভা কমিটির অনুমোদনের জন্য ৫টি প্রস্তাব তোলা হয়। এরমধ্যে বিদ্যুৎ বিভাগের ৪টি এবং পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের ১টি প্রস্তাবনা ছিল। ক্রয় কমিটির অনুমোদিত ৪ প্রস্তাবে মোট অর্থ ব্যয় ধরা হয়েছে ১২৭ কোটি ৮ লাখ ৮৮ হাজার ৯৮ টাকা।’
এরপর অতিরিক্ত সচিব ড. আবু সালেহ মোস্তফা কামাল বলেন, ‘সভায় রংপুর মেটাল ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড (ইউনিট-৩)-এর ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সরবরাহকারী কাছ থেকে ১৭, হাজার ৪০ কিলোমিটার সংযোগ তার কিনতে ব্যয় হবে ৪৭ কোটি ১০ লাখ ৫ হাজার ৮২০ টাকা।’ তিনি বলেন, ‘এছাড়া ৩৫ কিলোমিটার ১১ কেভি ও ৩৩ কেভি আন্ডার গ্রাউন্ড ক্যাবল সরবরাহের জন্য সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিবিএস ক্যাবল লিমিটেডের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে কমিটি । এই খাতে ব্যয় হবে ১৬ কোটি ৫২ লাখ ৭৮ হাজার ৫০০ টাকা।’
অতিরিক্ত সচিব বলেন, ‘২৯৫ কিলোমিটার সংযোগ তার কেনার একটি দরপ্রস্তাবে অনুমোদন দিয়েছে কমিটি। সর্বনিম্ন দরদাতা প্রতিষ্ঠান পারটেক্স ক্যাবল লিমিটেড এই ক্যাবল সরবরাহ করবে। এজন্য ব্যয় হবে ২ কোটি ৫৬ লাখ ৩ হাজার ৮৯৫ টাকা।’তিনি আরও বলেন, ‘হবিগঞ্জের শাহজীবাজারে ৩৩০ মেগাওয়াট কম্বাইন্ড সাইকেল বিদ্যুৎকেন্দ্রের গ্যাস টারবাইন ইউনিট ১ ও ২-এর পরিচালন ও রক্ষণাবেক্ষণের জন্য খুচরা যন্ত্রাংশ কেনা ও বিশেষজ্ঞ সেবা- সংক্রান্ত ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। ভারতীয় প্রতিষ্ঠান মেসার্স বিএইচইএল-জিই গ্যাস টারবাইন সার্ভিসেস প্রাইভেট লিমিটেডের কাছ থেকে এই সেবা নেওয়া হবে। এজন্য ব্যয় হবে ৬০ কোটি ৮৯ লাখ ৯৯ হাজার ৮৮৬ টাকা।’
এছাড়া, পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের আওতাধীন বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর ‘ন্যাশনাল হাউসহোল্ড ডাটাবেইজ (এনএইচডি)’ প্রকল্পটি পর্যবেক্ষণসহ পরবর্তী সভায় উপস্থাপনের জন্য ফেরত পাঠানো হয়েছে।
এরআগে, অর্থমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অর্থনৈতিক বিষয় সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তরের ৪০লাখ মেশিন রিডেবল পাসপোর্ট বুকলেট ও ৪০ লাখ লেমিনেশন ফয়েল ‘সরাসরি ক্রয় পদ্ধতি’তে কেনার নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।